সৌদিতে নতুন অভিবাসন আইন, শঙ্কায় ৫০ লাখ অভিবাসী

:

অনলাইন ডেস্ক : সৌদি আরবের সরকার নতুন অভিবাসী আইন প্রণয়নের লক্ষ্যে আলোচনা শুরু করেছে। এর ফলে সে দেশের প্রায় ৫০ লাখ অভিবাসীর এক বিরাট অংশকে বহিষ্কার করা হতে পারে।সৌদি দৈনিক আল-হায়াতের বরাত দিয়ে বিবিসি জানায়, সৌদি শুরা কাউন্সিল অবৈধ অভিবাসন নির্মূলের লক্ষ্যে এক বিশেষ কমিশন গঠনের প্রশ্নে আলোচনা শুরু করছে।

সৌদি আরবের অবৈধ অভিবাসী সমস্যা সম্পর্কে এই কাউন্সিলের জন্য একটি প্রতিবেদন তৈরি করেছেন কাউন্সিলর ড. সাদকা ফাদেল। তিনি জানান, ‘হজ, ওমরা কিংবা ভ্রমণ ভিসা নিয়ে এশিয়া এবং আফ্রিকার নানা দেশ থেকে বিপুল সংখ্যক মানুষ সৌদি আরবে প্রবেশ করেছেন। কিন্তু এদের বেশিরভাগই আর নিজ দেশে ফেরেন না।’

তিনি জানান, নিজেদের পাসপোর্ট ফেলে দিয়ে এরা রাজধানী রিয়াদ, জেদ্দা, মক্কা, মদিনা এবং তাইফের মত শহরে লুকিয়ে কাজ করছেন। স্থানীয়ভাবে কেউ কেউ বিয়েও করেছেন। এদের মধ্যে একটা বড় অংশ নানা ধরনের অপরাধের সঙ্গে যুক্ত হয়ে পড়েছেন।

এই সমস্যা সৌদি সরকার জাতীয় নিরাপত্তার প্রতি বড় একটি হুমকি হিসেবে বিবেচনা করছে। সেজন্যই অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপের চিন্তাভাবনা চলছে। এমনকী এসব অবৈধ অভিবাসীরা যাতে বৈধ হতে পারে সৌদি সরকার প্রাথমিকভাবে সেই চেষ্টাই করবে বলে জানান ফাদেল।

পাশাপাশি এসব মানুষের মানবাধিকারের প্রশ্নটিও জড়িত রয়েছে। তিনি বলেন, যাদের কাগজপত্র ঠিক করা যাবে, তারা বৈধভাবে থাকার অনুমতি পাবেন। কোন কোন ক্ষেত্রে সৌদি নাগরিকত্ব দেয়ার প্রশ্নটিও বিবেচনার মধ্যে রয়েছে। কিন্তু বহু অবৈধ অভিবাসী রয়েছেন যারা অপরাধের সঙ্গে যুক্ত। এদের সৌদি আরব ছাড়তে হবে বলে তিনি জানান।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *