শিশু শিক্ষার্থীদের দিয়ে খালের মাটি খনন

বরগুনার বামনায় ১৬ নং পূর্ব সফিপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীদের পাঠদান বন্ধ রেখে সামাজিক কর্মকাণ্ডের অজুহাতে খালের মাটি খনন করায় বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। আজ শনিবার সকালে এ ঘটনায় শিক্ষার্থীদের অভিভাবক ও সুশিল সমাজের প্রতিনিধিরা ক্ষোভ ও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

আজ বেলা ১১টার দিকে সফিপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, সকল শ্রেণির কক্ষের পাঠদান বন্ধ রয়েছে। বিদ্যালয় সংলগ্ন খালে কোমর সমান পানিতে ভিজে কয়েক শতাধিক কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীরা মাটি খননের কাজ করছে। বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা এই কাজে শিক্ষার্থীদের বাধ্য করতেও দেখা গেছে।

এ ব্যাপারে ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আনোয়ার হোসেন জানান, তাদের বিদ্যালয়ের ফান্ডে টাকা না থাকায় বামনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার অনুমোতি নিয়ে শিক্ষার্থীদের দিয়ে স্বেচ্ছাশ্রমে বিদ্যালয়ের সম্মুখের মাঠ ভড়াটের জন্য খালের মাটি খনন করা হচ্ছে।

বামনা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা খোকন চন্দ্র মালাকার জানান, এই খাল খননের কাজে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আমারও অংশগ্রহণের কথা ছিলো। এটা একটি সামাজিক স্বেচ্ছাশ্রম।

বামনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাকির হোসেন বাচ্চু বলেন, পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার অংশ হিসেবে বিদ্যালয়ের মাঠ ভড়াটের জন্য খাল খনন করার অনুমোতি দিয়েছি।

শিশুদের দিয়ে এই মাঠ ভড়াটের বিষয়ে তিনি আরও বলেন, শিশুরা যেহেতু কোন পারিশ্রমিক পাচ্ছেনা তাই এ কাজ কোন শিশুশ্রমের আওতাভূক্ত নয়, এটা স্বেচ্ছাশ্রম। শিশুদের হাতে কলমে কাজ শিখানোর জন্য এই উদ্যোগ।

বরগুনা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক, শিক্ষা ও আইসিটি) মো. নুরুজ্জামান বলেন, একটি প্রাথমিক মডেল বিদ্যালয়ে এই কাজ করানো কখনোই সম্ভব নয়। আমি বামনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কথা বলবো।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *