ব্রেকিং নিউজ

রাণীনগরে প্রধান শিক্ষককে দ্বায়িত্ব হস্তান্তর না করার অভিযোগ

মোঃ আবু বিন জাহিদ,রাণীনগর (নওগাঁ) প্রতিনিধি : নওগাঁর রাণীনগরে আদালতের আদেশে প্রধান শিক্ষক হিসেবে বিদ্যালয়ে যোগদান করলেও দায়িত্ব হস্তান্তর না করার অভিযোগ উঠেছে ওই স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে। ফলে একদিকে যেমন পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে অন্য দিকে বিষয়টি নিয়ে শিক্ষার্থী/অভিভাবকদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। ঘটনাটি উপজেলা সদর পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের। এঘটনায় প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন। জানা গেছে, উপজেলা সদরে রাণীনগর পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক হিসেবে চাকুরী করা কালে ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের শূন্য পদে প্রধান শিক্ষক নিযোগের বিজ্ঞপ্তি ও নিয়ম অনুসারে উপজেলার চকউজির গ্রামের মৃত আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে নজরুল ইসলাম গত ১৪ মার্চ /২০০৪ ইং সালে প্রধান শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। এরপর প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলামকে কাজ করতে না দেয়ায় রাণীনগর সহকারী জজ আদালতে ১৪০/১৫ অ:প্র: মোর্কদ্দমা আনায়ন করেন। এতে আদালত গত ১৫ জানুয়ারী /২০১৮ তারিখে শিক্ষক নজরুল ইসলামকে ২৮ মার্চ /২০০৪ তারিখ থেকে প্রধান শিক্ষক হিসেবে বহাল আছেন মর্মে আদেশ দেন। গত ২৩ জানুয়ারী /১৮ তারিখে ৫৭ নং স্মারকে শিক্ষক নজরুল ইসলামের প্রধান শিক্ষক হিসেবে বহাল রাখিতে আইনগত কোন বাধা নেই মর্মে নওগাঁ সরকারী কৌশুলী অত্র বিদ্যালয়ের সভাপতি বরাবর আইনগত মতামত প্রদান করেন। আদালতের আদেশ ও সরকারী কৌশুলীর মতামতের উপর ভিত্তি করে ওই বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি গিয়াস উদ্দীন প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলামকে গত ১২ মার্চ সাত দিনের মধ্যে প্রধান শিক্ষক হিসেবে দ্বায়িত্বভার গ্রহনের জন্য পত্র প্রেরণ করেন। পত্রের আলোকে শিক্ষক নজরুল ইসলাম গত ১৪ মার্চ বিদ্যালয়ে যোগদান করেন। কিন্তু যোগদানের পর থেকে দ্বায়িত্বভার বুঝে না দিয়ে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুছ সোবহান প্রধান শিক্ষকের কক্ষে তালা দিয়ে বিভিন্ন ভাবে তালবাহনা করছেন। ঘটনাটি নিয়ে শিক্ষকদের মধ্যে নীতিবাচক প্রভাব এবং ছাত্র/ছাত্রীদের মধ্যে মানবিক অস্থিরতা বৃদ্ধিসহ বিদ্যালয়ের কার্যক্রম ব্যহত হচ্ছে। এদিকে যোগদানের সাত দিন অতিবাহিত হলেও ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুছ ছোবহান দ্বায়ীত্বভার বুঝে না দেয়ায় প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে রাণীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বরাবর দ্বায়ীত্বভার গ্রহনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে একটি লিখিত আবেদন করেছেন।এব্যাপারে পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুছ ছোবহান জানান, নজরুল ইসলামের রায়ের বিরুদ্ধে আমরা একটি আপিল করেছি। এছাড়া আগামী শনিবার বিদ্যালয়ে একটি বৈঠক আহ্বান করা হয়েছে। বৈঠকে যে সিদ্ধান্ত হবে সে মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে।
অত্র বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি গিয়াস উদ্দীন জানান, বিষয়টি নিয়ে মত-বিরোধ দেখা দিয়েছে। এবিষয়ে আগামী শনিবার বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।
রাণীনগর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, প্রধান শিক্ষক হিসেবে দ্বায়ীত্বভার বুঝে নিতে শিক্ষক নজরুল ইসলাম একটি লিখিত আবেদন করেছেন। বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *